ইবি শিক্ষার্থীদের ভাবনায় নারী দিবস: আমাদের প্রাপ্তি অপ্রাপ্তি

0


Published : ০৮.০৩.২০১৮ ০৭:৪০ অপরাহ্ণ BdST

সাব্বির আহমেদ, ইবি প্রতিনিধিঃ “সাম্যের গান গাই- আমার চক্ষে পুরুষ রমনী কোনো ভেদাভেদ নাই। বিশ্বের যা-কিছু মহান সৃষ্টি চিরকল্যানকর অর্ধেক তার করিয়াছে নারী, অর্ধেক তার নর। বিশ্বে যা-কিছু এল পাপ-তাপ বেদনা অশ্রুবারি অর্ধেক তার আনিয়েছে নর, অর্ধেক তার নারী”। জাতীয় কবি কাজী নজরুলের এই কবিতা আমাদের বর্তমান সময়ের সাথে কতটুকু সঙ্গতিপূর্ণ তা আজ সময়ের কাছে প্রত্যেক নারীর প্রশ্ন।

আজ ৮ মার্চ আন্তর্জাতিক নারী দিবস। ১৯৭৫ সাল থেকে প্রতি বছরের ন্যায় এ বারও বিশ্বব্যাপী পালন করা হচ্ছে আন্তর্জাতিক নারী দিবস।এবারের নারী দিবসের মূল প্রতিপাদ্য বা স্লোগান নির্ধারণ করা হয়েছে “সময় এখন নারীর : উন্নয়নে তারা, বদলে যাচ্ছে গ্রাম-শহরের কর্ম-জীবনধারা”।

নারী দিবসে আমাদের প্রাপ্তি-অপ্রাপ্তি,নারী অধিকারের বর্তমান-ভবিষ্যত এসব নিয়ে ভাবতে শুরু করেছে বর্তমান প্রজন্মের সচেতন নারীরা।নারী দিবস নিয়ে তাদের প্রাপ্তি- অপ্রাপ্তি,বর্তমান-ভবিষ্যত প্রসজ্ঞে কথা বলেছেন কিছু ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়(ইবি) শিক্ষার্থী।

বায়োটেকনোলজি বিভাগের ইসমেত জেরিন বিনতে নিজাম কিছুটা আক্ষেপের সাথেই বলেন,”পহেলা বৈশাখ;পহেলা ফাল্গুন ,বই মেলা , চৈত্র সংক্রান্তি, বাস – ট্রেন ,রিকশা সবখানে উত্ত্যক্ত হচ্ছি আমরা।হ্যাঁ কেবল বিশেষ দিন গুলোতে না ,প্রতিদিনই উত্ত্যক্ত হচ্ছি আমরা।প্রতিদিনের সাথে বিশেষদিনগুলোর পার্থক্য এই যে,অন্যান্য দিনে পুরুষ আর পশুকে আমরা পার্থক্য করতে পারি কিন্তু বিশেষ দিনগুলোর ভীড়ে সবাই কেমন যেন পশু হয়ে যায়। নারী নির্যাতনের ঘটনার মুক্তি আপনাদের সকলের মগজে”।

আফরোজা মীম নামের এক শিক্ষার্থীর মতে, “নারী দিবস আমাদের নারীদের প্রয়োজনীয়তা/অধিকার বারবার মনে করিয়ে দেয়। শুধু গ্রাম নয়, আমাদের শহরেও অসংখ্য বঞ্চিত নারী আছেন। আসলে নারীদের উচিত, নিজেরাই নিজেদের উৎসাহিত করা”।

ফারজানা শাম্মী নামের এক শিক্ষার্থী বলেন,” যে প্রয়োজনীয়তা থেকে নারী দিবসের উৎপত্তি, তার সাথে আজকের প্রেক্ষাপট সম্পূর্ণরূপে ভিন্ন।আজকে নারীরা পদে পদে অবহেলিত, অপমানিত হচ্ছে।নারীরা তাদের অধিকার হতে বঞ্চিত হলে সমাজের উন্নয়ন আশানুরূপ আশা করাটা বোকামি হবে”।

বছরের একটি দিন শুধু সম্মান পেয়ে বাকী দিনগুলোতে রাস্তাঘাটে ইভটিজিং এর স্বীকার হতে চায় না নারীরা।নারীরা আজও অনেক ক্ষেত্রে নিপীড়িত,অবহেলিত। অনেক নারী তাঁদের অধিকার সম্পর্কে অবগত নয়। নারীরা আজ নারী হিসেবে নয় বরং মানুষ হিসেবে সমাজে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত হতে চাই। আর এটা নারীদের প্রতি কোন করুণা নয় বরং নারীদের অধিকার।

আর পুরুষ জাতির বোধগম্য হওয়া উচিত আপনি যখন কোনো নারীকে শ্রদ্ধা করেন, তখন আপনি আপনার নিজেরই সম্মান বাড়ান।তাইতো কাজী নজরুল নারীদের সম্মানার্থে বলেছেন”জগতের যত বড় বড় জয়, বড় বড় অভিযান মাতা ভগ্নি বধুদের ত্যাগে হইয়াছে মহান”।

আপনার মন্তব্য :

Please enter your comment!
Please enter your name here