নিজেদের মাঠে টানা দ্বিতীয় হার ভাইকিংসের

0


Published : ২৭.০১.২০১৯ ০৮:৩১ পূর্বাহ্ণ BdST

জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামের উইকেটে বড় রান পাওয়াও যেমন সহজ, তেমনই বড় লক্ষ্য টপকে জেতাও খুব কঠিন না। খুব কঠিন না হলেও আজ জিততে জিততে হেরে গেল চিটাগং ভাইকিংস।


আগের ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের লক্ষ্যটা (২৩৯) একটু বেশিই হয়েছিল বিধায় মুশফিকরা আর পেরে উঠতে পারেনি। দ্বিতীয় ম্যাচে রাজশাহীর কাছেও হেরেছে পয়েন্ট তালিকায় ১ নম্বরে থাকা দলটা।

গতকাল সন্ধ্যায় দ্বিতীয় ম্যাচে টস হেরে আগে ব্যাটিং করার সুযোগ পায় রাজশাহী কিংস। ব্যাটিংয়ে নেমে দুই কিংস ওপেনার জনসন চার্লস আর সৌম্য সরকার মিলে গড়েন ৫০ রানের জুটি। সৌম্য প্রথমে ২৬ করে বিদায় নেন খালেদ আহমেদের বলে ক্যাচ দিয়ে।

এরপর আরেক ওপেনার জনসন চার্লস নিজের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমে ৪৩ বলে করেন ৫৫ রান। লরি ইভানস খেলেন ২৯ বলে ৩৬ রানের ইনিংস। মিডল অর্ডারে রায়ান টেন ডেসকাটের ১২ বলে ২৭ রানের ইনিংস কিংসদের ভিত মজবুত করে দেয় দ্রুতই।

শেষদিকে ক্রিস্টিয়ান জঙ্কারের ১৭বলে ৩৭ রানে ভর করে ৫ উইকেটে ১৯৮ রান তুলে রাজশাহী কিংস।

চিটাগংয়ের হয়ে ২ উইকেট নেন খালেদ আহমেদ। ১ উইকেট নেন আবু জায়েদ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে ভাইকিংস ওপেনার মোহাম্মদ শাহাজাদ খেলেন ২২ বলে ৪৯ রানের বিধ্বংসী ইনিংস। আরেক ওপেনার ক্যামেরুন দেলপোর্ট যদিও সাজঘরে ফেরেন ৭ রান করে।

এরপর দুই নম্বরে ব্যাট করতে এসে ধারাবাহিকতা অব্যাহত রাখেন ইয়াসির আলী। এই ম্যাচেও খেলেন ৩৮ বলে ৫৮ রানের ইনিংস। মুশফিকুর রহিমের উইকেটে থিতু হবার চেষ্টা ব্যর্থ করে দেন কামরুল রাব্বি।

টপ অর্ডারের বিদায়ের পর মিডল অর্ডারে সিকান্দার রাজা আশা দেখান ম্যাচ জয়ের। কিন্তু পারেননি বেশিদূর নিতে। ১৫ বলে ২৯ রানের মাথায় বোল্ড হয়ে ফেরেন মুস্তাফিজের করা ইনিংসের শেষ ওভারে।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য আর ১৩ রান বাকি থাকে। কিন্তু নিতে পারেনি স্বাগতিক চিটাগং ভাইকিংসের ব্যাটসম্যানরা। তাতে ৭ রানের জয়ে পয়েন্ট তালিকায় পাঁচ নম্বরে থাকা সিলেট সিক্সার্সকে টপকে আবারও উঠে এলো পাঁচ নম্বরে।

রাজশাহী কিংসের হয়ে ৩ উইকেট নেন মুস্তাফিজুর রহমান। ২টি করে উইকেট নেন কামরুল রাব্বি আর মেহেদী মিরাজ। এছাড়া ১টি উইকেট নেন আরাফাত সানি।

আপনার মন্তব্য :

Please enter your comment!
Please enter your name here