পারলেন না কার্তিক!

0


Published : ২২.১১.২০১৮ ০৮:৫৫ পূর্বাহ্ণ BdST

চলতি বছরের মার্চে শ্রীলঙ্কার মাটিতে নিদাহাস ট্রফির কথা ভোলার কথা নয় ক্রিকেট প্রেমীদের। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে সৌম্য সরকারের বলে ছক্কা হাঁকিয়ে ভারতকে জয় এনে দিয়েছিলেন দিনেশ কার্তিক। বাংলাদেশের সমর্থকদের কাঁদিয়ে ম্যাচটি নিজেদের করে নিয়েছিলেন ডিকে খ্যাত অভিজ্ঞ এই ব্যাটসম্যান। আজও ছিল ঠিক তেমনি একটা সুযোগ। যদিও শেষ হাসিটা হাসল অস্ট্রেলিয়াই।


ব্রিসবেনের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি টস জিতে অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাট করতে পাঠান। শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক দেখাচ্ছিল অ্যারন ফিঞ্চ নেতৃত্বাধীন দলটির ব্যাটসম্যানদের।

ফিঞ্চ ছাড়াও ভারতীয় বোলাররাও চাপ তৈরি করনে ক্রিস লিন, মার্কাস স্টোনিসরা। অন্যদিকে গ্লেন ম্যাক্সওয়েল তো অসাধারণ এক ইনিংস খেলেন। মাত্র ২৩ বলে চারটি বিশাল ছক্কা হাঁকিয়ে তুলে নেন ৪৬ রান। ১৬.১ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ যখন ১৫৩ রান ঠিক এমন সময় আসে বৃষ্টি। আকাশ পরিষ্কার হবার পর ম্যাক্সওয়েল মাঠে নামলেও জসপ্রিত বুমরাহর বলে আউট হয়ে ফিরে যান। শেষ পর্যন্ত ১৭ ওভার পর্যন্ত ১৫৪ রান সংগ্রহ করলেও সফরকারীদের সামনে ডার্কওয়ার্থ লুইস পদ্ধতিতে ১৭৪ রানের বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় অজিরা।

১৭ ওভারের এই ম্যাচে পাল্টা প্রতিরোধে ভারতের দুই ওপেনার আক্রমণাত্মক শুরু করেন দলীয় পঞ্চম ওভারে রোহিত শর্মা ৭ রান করে ফিরে গেলেও লড়াই চালিয়ে যান শিখর ধাওয়ান। কে এল রাহুল (১২ বলে ১৩), বিরাট কোহলি (৮ বলে ৪) কেউই ধাওয়ানকে যোগ্য সঙ্গ দিতে পারেননি। দলীয় ১০৫ রানের মাথায় ৪২ বলে ৭৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে মাঠ ছাড়েন বাম-হাতি এই ওপেনার। এতেই ফিকে হতে থাকে ভারতের জয়ের সম্ভাবনা।

পঞ্চম উইকেটে ঋষভ পন্থকে নিয়ে ৫১ রানের এক জুটি গড়েন দীনেশ কার্তিক। দুই জনের ব্যাটিং দেখে মনে হচ্ছিল যে ম্যাচটি নিজেদের করে নিতে সক্ষম হবে রবি শাস্ত্রীর শিষ্যরা। যদিও ১৬তম ওভারের তৃতীয় বলে আউট হয়ে ফেরেন ১৬ বলে ২০ রান করা পন্থ। তখনও ক্রিজে ছিলেন কার্তিক। তাই ম্যাচের ভাগ্য নির্ধারণ করা সম্ভব হচ্ছিল না।

শেষ ওভারে মার্কাস স্টোনিসের জাদুময় ওভারে সব হিসেব পাল্টে যায়। ৬ বলে দরকার ছিল ১৩ রান। হাতে পাঁচ উইকেট। প্রথম ওভারে দুই রান তুলে নেন ক্রনাল পান্ডিয়া। পরের বলে রান তুলতে পারেননি এই স্পিনিং অলরাউন্ডার। তৃতীয় বলেই ক্যাচ তুলে মাঠ ছাড়ের ৪ বলে ২ রান করা পান্ডিয়া। প্রান্ত বদল করে নেন কার্তিক। বল উড়িয়ে মারতে গিয়ে ফিল্ডারের হাতে ধরা পড়লেন তিনি। পরের বলে ওয়াইড দিলেন স্টোনিস। যদিও শেষ দুই বলে একটি বাউন্ডারিসহ আরও ৫ রান তুলে নেয় ভারত। তবে জয়ের  ৪ রানের জয়ের স্বাদ পেলে ফিঞ্চের দলই।

৪ ওভার বল করে মাত্র ২২ রানে দুই উইকেট তুলে ম্যাচ সেরা নির্বাচিত হন অ্যাডাম জাম্পা। ২৩ নভেম্বর শুক্রবার সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে মেলবোর্নে মুখোমুখি হবে দল দুটি।

আপনার মন্তব্য :

Please enter your comment!
Please enter your name here