যানজটের বড় কারণ ট্র্যাফিক অব্যবস্থাপনা

0


Published : ২৩.০১.২০১৯ ০৮:২৬ পূর্বাহ্ণ BdST

ঢাকার অন্যতম সমস্যা যানজট। সম্প্রতি মেট্রোরেলের নির্মাণ কাজের জন্য রাজধানীর গুরুত্বপূর্ণ অনেক সড়কে দুর্ভোগ আরও বেড়েছে। রাস্তার মাঝে মেট্রোরেলের কাজ করায় রাস্তার তিনভাগের একভাগ বন্ধ হয়ে গেছে।


প্রতিদিন দুর্বিষহ যানজটে পড়ে মূল্যবান কর্মঘণ্টা নষ্ট হচ্ছে অনেকের। এরকম ভুক্তোভোগী একজন নাজমুল ইসলাম। একটি বেসরকারি ব্যাংকে চাকরি করেন তিনি।

নাজমুল ইসলাম বাংলা কাগজকে বলেন, ঢাকা শহরের জ্যাম দিন দিন বাড়ছে। আমার বাসা আগে মৌচাকে ছিলো। ফ্লাইওভারের কাজ চলার কারণে সে এলাকা থেকে বাসা বদল করেছি। এখন মেট্রোরেলের কাজ চলছে। উন্নয়ন হয়তো হচ্ছে। কিন্তু সাথে সাথে মানুষেল ভোগান্তিও বাড়ছে।

তিনি আরও বলেন, যানজটের আরেকটি বড় কারণ ট্র্যাফিক অব্যবস্থাপনা। সিগন্যালের তোয়াক্কা না করে একই পয়েন্টে আধাঘণ্টা পর্যন্ত একদিকের যানবাহন আটকে রাখে ট্র্যাফিক পুলিশ। অটো সিগন্যাল বাতিতে যানবাহন নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে না। বাতির বদলে যানবাহন নিয়ন্ত্রণ হয় ট্র্যাফিক পুলিশের হাতে।

বাস, মিনিবাস ইত্যাদি নির্দিষ্ট স্থানে না থামিয়ে চলন্ত অবস্থায় রাস্তার মাঝখানে সোজাসুজি যত্রতত্র থামিয়ে যাত্রী ওঠা-নামা করা হয়। এতে প্রাইভেট কার, মাইক্রোবাস বিভিন্ন যানবাহন চলাচলে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয় এবং মানুষ অবর্ণনীয় দুর্ভোগের শিকার হয়।

ঢাকার রাজপথে ও ফুটপাথের বড় একটা অংশ অবৈধ দখলদারদের অধীনে রয়েছে। এই অবৈধ দখলদারদের সঙ্গে পুলিশও জড়িত বলে অনেকের ধারণা। এটাও যানজটের একটা কারণ।

এছাড়া রাস্তা সংস্কার কিংবা ওয়াসা, তিতাসের মতো প্রতিষ্ঠানগুলোর খোড়াখুড়িতে প্রায়ই নাগরিক দুর্ভোগে পড়তে হয় ঢাকাবাসীকে। এর সঙ্গে বর্ষার মৌসুমে সৃষ্ট জলাবদ্ধতাও ভোগান্তি উপহার দেয় রাজধানী ঢাকাকে। ওই সময়ে যানবাহন চলাচলে তৈরি হয় প্রতিবন্ধকতার।

ঢাকা দক্ষিণ ট্রাফিক বিভাগের সার্জেন্ট আনিসুল ইসলাম বাংলা কাগজকে বলেন, ঢাকা শহরের বেশিরভাগ বাস মতিঝিল কেন্দ্রিক। আর মেট্রোরেলের কাজ চলছে পুরো রাজধানী জুড়ে। মেট্রোরেলের কাজ করার জন্য ৪০ ফিট জায়গা অধিগ্রহণ করেছে মেট্রোরেল কর্তপক্ষ। রাস্তায় আগে চারলেন ছিলো । এখন এটা দুই লেনের রাস্তা হয়েছে। তুলনামুলকভাবে রাস্তা ছোট হয়ে গেছে।

ফার্মগেটের বাসিন্দা রোকেয়া ইসলাম বাংলা কাগজকে বলেন, নির্বাচনের পর থেকে রাস্তার জ্যাম বেড়ে গেছে।নির্বাচনের আগে ও পরে বেশ কিছুদিন মানুষের জীবন স্থবির হয়ে ছিলো। কর্মব্যস্ততা বাড়ার কারণে যানজটের পরিমাণ কিছুটা বেড়ে গেছে।

আপনার মন্তব্য :

Please enter your comment!
Please enter your name here